ফ্রী টকটাইম এবং ইন্টারনেট দিচ্ছে অপারেটর কোম্পানিগুলা

সিলেট সুনামগঞ্জ বন্যার্তদের যোগাযোগ রক্ষার্থে এগিয়ে এসেছে দেশের অপারেটর কোম্পানিগুলাও। বর্তমানে দেশের সিলেট এবং সুনামগঞ্জ অঞ্চলে ভয়াবহ বন্যার কারনে অঞ্চলের মানুষের জীবন কিন্তু দুর্বিষহ কিন্ত দেশের সর্বস্তরের মানুষ কিন্তু সাহায্যের হাত এগিয়ে দিচ্ছে এটা সত্যিই দেশের মানুষ হিসাবে গর্বের ব্যাপার।

আমরা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে যেমন বন্যার ভয়াবহতা দেখতে পাচ্ছি সে সাথে মানুষের সাহায্যও কিন্তু বেশ লক্ষণীয়। দেশ সেরা নায়ক, গায়ক, ইউটিউবার, মডেল, লেখক, ক্ষুদ্র গ্রুপ, সংস্থা সবাই কিন্তু এই বন্যাকে কেন্দ্র করে সিলেটবাসির পাশে দাঁড়িয়েছে। আর সেই সাথে এবার যোগদিয়েছে দেশের সিম অপারেটর বা টেলিকম কোম্পানিগুলাও।

প্রতিটা সিম অপারেটর কোম্পানি হতে কিছু না কিছু পদক্ষেপ আমরা নিতে দেখছি যেমন – জিপি বা গ্রামীনফোন অপারেটর তাদের গ্রাহকদের জন্য ১০ মিনিট টকটাইম, রবি তাদের গ্রাহকদের জন্য ১০ মিনিট টকটাইম এবং সেই সাথে ১০০ এমবি ইন্টারনেট ফ্রী দিচ্ছে ।

পিছিয়ে নেই টেলিটক এবং বাংলালিংকও টেলিটক তাদের গ্রাহকদের জন্য কিন্তু ১০ মিনিট টকটাইম এবং ৫০০ এমবি ইন্টারনেট এবং সেই সাথে ২০টি এসএমএস ফ্রী দিচ্ছে আর বাংলালিংক থেকেও তিন দিন মেয়াদের ১০ মিনিট টকটাইম এবং সে সঙ্গে ১০০ এমবি ইন্টারনেট দিবে বলে জানা যায়। এছাড়াও বন্যা কবলিত বাংলালিংক প্রিপেইড গ্রাহকদের একাউন্টের মেয়াদও কিন্তু ৩০ দিন বৃদ্ধি করা হয়েছে। এবং সেই সাথে ২০০ টাকা পর্যন্ত ইমারজেন্সি ব্যালেন্সেরও সুযোগ থাকছে।

যদিও এই ক্ষুদ্র টকটাইম আর ইন্টারনেট বন্যা কবলিত মানুষদের জন্য কিছুই না কিন্তু তারপরও সর্বস্তরের মানুষের সাথে সাথে অপারেটর কোম্পানিগুলাও এ ক্রান্তি লগ্নে ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকবে তাদের এ মহৎ কাজের উদ্যগের জন্য।

আর এ উদ্যগে সিলেটবাসীর জনগণের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষার্থে কিছুটা হলেও সহায়ক ভূমিকা পালন করবে এমনটাই প্রত্যাশা সকল অপারেটর কোম্পানিগুলার। এছারাও বন্যা অঞ্চলে মানুষ কিন্তু খুবই ইন্টারনেট সংযোগ এবং নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সে বিষয়েও কাজ করে যাচ্ছে দেশের অপারেটর কোম্পানিগুলা।

অপারেটর কোম্পানিগুলার এমন উদ্যোগের কথা জেনে আপনি কি ভাবছেন কমেন্ট করে জানাবেন কিন্তু। সেই সাথে সকল সিলেট বাসীর জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন সকলকে হেফাজতে রাখে। আমিন 💞

4.5/5 - (2 votes)

Leave a Comment